ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় কলেজছাত্রীকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জব্দ করা হয়েছে অপহরণ কাজে ব্যবহৃত সিএনজিচালিত অটোরিকশা। এ ঘটনায় বুধবার রাতে ভুক্তভোগী নিজেই আখাউড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন-ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার শিমরাইলকান্দির আব্দুল মান্নানের ছেলে মো. শুভ প্রকাশ সবুজ, কাউতলীর শেখ মিলনের ছেলে রবিউল আউয়াল হৃদয় ও ভাদুঘরের কুদ্দুস মিয়ার ছেলে মো. কাউছার। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়। তারা সবাই যুব বয়সী।

মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার সৈয়দাবাদের বাসিন্দা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি ঈদের ছুটিতে বাড়ি যেতে বুধবার বিকেল সাড়ে তিনটায় জেলা সদরের কাউতলী থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় ওঠেন। এসময় চালক কাউছার অপর দুই যুবকের সঙ্গে কথা বলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই যুবকরা অটোরিকশায় ওঠে। চালক যানজটের কথা বলে প্রধান সড়ক দিয়ে না গিয়ে আখাউড়া হয়ে কসবা যাওয়াটা সহজ হবে বলে জানায়।

পরে অটোরিকশা আখাউড়া যাওয়ার পর কসবার দিকে না গিয়ে স্থলবন্দরের দিকে যেতে থাকলে ওই কলেজছাত্রীর সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে প্রতিবাদ করলে যুবকরা অস্ত্রের ভয় দেখায়। আখাউড়ার খালাজোড়া এলাকায় গিয়ে অটোরিকশা দাঁড় করানো হলে ওই শিক্ষার্থী চিৎকার শুরু করেন। তখন আশপাশের লোকজন এসে ওই দুই যুবক ও অটোরিকশা চালককে আটক করেন।

এ বিষয়ে আখাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় সরকার জানান, ওই কলেজছাত্রীকে অপহরণসহ তার কাছ থেকে কিছু ছিনিয়ে নিতেই এ ধরনের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। আটক ব্যক্তিরা মাদকসেবী। তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here